মামণি
তোমাকে আমি চুদবো কি? নিষ্পাপ বাড়ন্ত ফুলের মতো একটি মেয়ে ছিলে। রঙ্গিন চশমায় হয়তো পৃথিবীটাকে অনেক রঙ্গিন দেখতে। আমি তোমাকে কোলে বসিয়ে জড়িয়ে ধরে রেখেছিলাম কিছুক্ষণ। তারপর বলেছিলাম, মামাণি, তুমি না পাইলট হতে চেয়েছিলে? পাইলট হতে হলে কিন্তু অনেক পড়ালেখা করতে হয়।
তুমিও খুব আহলাদ করে বলেছিলে, পড়ালেখা আমার সব মুখস্থ! শুধু আপনিই কখনো সেকেণ্ড হননি, আমিও ক্লাশ এর ফার্ষ্ট গার্ল! জানি তো, আম্মু ছিলো ফেল্টু! আমার জন্মের পরই নাকি আম্মু এস, এস, সি, পাশ করেছিলো। আর ওটা নাকি আপনিই জোড় করে পড়িয়ে পরীক্ষা দিতে বলেছিলেন।

আমি তখন অনেক অতীতেই ফিরে গিয়েছিলাম মামণি। আসলে, তোমার মা আমার প্রথম ছাত্রী ছিলো। তোমার মায়ের জন্যে একটু যে ভালোবাসা আমার বুকে জন্মায়নি, তা কি করে বলি? হুম, লেখাপড়ায় তোমার মা কখনোই ভালো ছিলো না। খুব সুন্দরী রূপসী ছিলো বলেই এক বিজন্যাস ম্যাগনেট হঠাৎই বিয়ে করে ফেলেছিলো তোমার মাকে। কিন্তু শিক্ষিত সমাজে আলাপে একটু জায়গা করে নিতে পারতো না। আমার খুব মায়া লাগতো। আর তাই, সেবার যখন তোমাকে শিশু কন্যাতে কোলে নিয়ে গ্রামে এসেছিলো, আমি নুতন করেই তোমার মাকে পড়াতাম। প্রাইভেট শিক্ষক হিসেবে নয়, সম্পূর্ণ নিজ দায়ীত্ব নিয়ে। ওটা তোমার মায়ের জন্যে খুব প্রয়োজন ছিলো। আর তোমার মাও খুব ভালোভাবেই এস, এস, সি, টা পাশ করেছিলো। শিক্ষিত সমাজে সুন্দর একটা জায়গা করে নিয়ে, তোমাদেরকেও পড়ালেখা শিখিয়েছে নিজ জিবন এর সমস্ত সুখ বিসর্জন দিয়ে।

ভালোবাসা কাকে বলে জানতাম না মামণি। তুমিই সেদিন আমার চোখ খুলে দিয়েছিলে। এখন কেনো যেনো মনে হয়, তোমার মা আমাকে খুব ভালোবাসতো। আমি তার মর্যাদা দিতে পারিনি। নিজ ইচ্ছাতে এসব এর কিছুই হয়নি। আমারও ছিলো তখন অপ্রাপ্ত বয়স। তোমার মাও এতটা উচ্ছৃংখল ছিলো যে, কাছাকাছি বাড়ী হলেও আমার বড় বোন তোমার মাকে কখনোই পছন্দ করতো না। কিন্তু আমার মা, তোমার মাকে খুব পছন্দ করতো। সেই তখনও।

সেদিন আসলে তোমাকে চুদতে চাইনি। আমি অনেক কিছু ভেবে দেখেছিলাম। তোমার মা সব সময় বলতো, আমাদের ডোন্ট মাইণ্ড ফ্যামিলী। কারো সাথে সেক্স করা কি কোন ব্যাপার হলো? ওসব লুকিয়ে করতে নেই। সবাই জানলে জানুক না! দেখলে দেখুক! দরজা বন্ধ রেখে ওসব করতে আমার ভালো লাগে না। কেমন যেনো চুন্নী চুন্নী মনে হয়।

সে রাতে আমি খুব অসহায় এর মতোই তোমাকে কোলে নিয়ে বসেছিলাম। তোমার মা হঠাৎই শান্ত গলায় তোমাকে লক্ষ্য করে বলেছিলো, তুমি তো বললে, তোমার দুধগুলো আমার চাইতে অনেক বড়! কই দেখি? টপসটা একটু খুলো তো!
তোমারও কি হয়েছিলো বুঝলাম না। তুমি সত্যি সত্যি স্কীন টাইট লাল রং এর টপসটা খুলে ফেললে। ঠিক ডালিম এর মতোই আকৃতির দুটি স্তন, তোমার ঘাড় এর উপর দিয়ে আমার চোখে এসে পরছিলো। খুবই সুঠাম! একটু গোলাকার! বৃন্ত প্রদেশটা গাঢ় খয়েরী! বোটা দুটি খুবই ছোট!

O nice....ki sundar

 
Return to Top indiansexstories